রিলিজ হল জুনিয়র নেহা কক্কর চাঁদমনির নতুন বাংলা গান, শুভেচ্ছার ঝ-ড় নেটদুনিয়ায়!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা তারপরেই বাজারে আসতে চলেছে চাঁদ মনি হেমরম এর নতুন একটি গান । ইতিমধ্যে সেই গানের রেকর্ডিং পদ্ধতি শুরু হয়ে গেছে সমাজের যে কোন স্তরের মানুষের কিন্তু আজ সভ্যতার অগ্রগতিতে শামিল হয়েছে । আদিবাসী সম্প্রদায় থেকে শুরু করে সমাজে উচ্চবিত্ত নিম্নবিত্ত এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষরা প্রতিযোগিতায় নাম লিখিয়েছেন । প্রত্যেকেই হতে চাইছে ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ার রমরমা পরিবেশে । নিজেদেরকে একবার জনপ্রিয়তার নিরিখে পৌঁছাতে চাই সকল শ্রেণীর মানুষেরা ।

কখনো কখনো বি-ফলতা গ্রা-স করলেও বেশীরভাগ ক্ষেত্রে মিলেছে সফলতা । গ্রামেগঞ্জে মানুষ হোক বা শহরের মানুষ নিজেদের প্রতিভাকে সবার সামনে তুলে ধরতে চাই প্রত্যেকে । তার প্রতিভা যেন পৃথিবীর আ-নাচে-কা-নাচে ছ-ড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা প্রতিটি মানুষ জানতে পারে তার চেষ্টাই করে অনেকে । কিন্তু কখনো কখনো কেউ কেউ বিনা চেষ্টাতেই হয়ে ওঠে জনপ্রিয় একটি মুখ । এই ধরুন যেমন আদিবাসী সম্প্রদায়ের একটি মেয়ে চাঁদ মনি হেমব্রম ।

আমরা দেখেছিলাম যে রানাঘাট স্টেশন চত্বরে গান গাওয়া রানু মন্ডল রাতারাতি হয়ে গিয়েছিল স্টার। শুধুমাত্র তার লতা কন্ঠে গানের জন্য ।এবার তার সমতুল্য একটি ঘটনা দেখা গেছে । বেশ কিছুদিন আগে আদিবাসী সম্প্রদায়ের একটি মেয়ে যার নাম চাঁদ মনি হেমব্রম । তিনি নেহা কক্কর এর কন্ঠে গাওয়া মিলে হো তুম হামকো গানটি গেয়েছিলেন এবং কোন এক ব্যক্তি সেটিকে ক্যামেরাব-ন্দি করেছিলেন ও পরবর্তী ক্ষেত্রে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেছিলেন । তারপর তাকে পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি । চিনতে অসুবিধা হয়নি চাঁদ মনি হেমব্রম কে ।

চাঁদ মনি হেমরম ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই একের পর এক গান করার সুযোগ আছে তার কাছে সম্প্রতি নতুন একটি গান প্রকাশিত হতে চলেছে বর্তমান বাজারে এবং এই গানটির নাম ভালোবাসি যে তোমায় । সেই গানটির রেকর্ডিং এর পদ্ধতি এবং যাবতীয় তথ্য সমূহ তুলে ধরা হয়েছে একটি ভিডিওতে । যেখানে দেখা যাচ্ছে চাঁদমণি একটি স্টুডিওতে গিয়ে সেইখানে রেকর্ডিং করছেন ।অর্থাৎ এর থেকে আপনি এমনটা বলতে পারেন যে খুব শিগগিরই বাজারে আসবে এবং পুনরায় বাড়িয়ে তুলবে চাঁদ মনির জনপ্রিয়তাকে।

Back to top button